পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নেওয়ার নিয়ম

পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নেওয়ার নিয়ম : বর্তমান সময়ে বিকাশ কোম্পানি বাংলাদেশের সকল ফ্রিল্যান্সারদের জন্য নতুন ফিচার নিয়ে এসেছে।

উক্ত মাধ্যম ব্যবহার করে আপনি পেওনিয়ার থেকে বিকাশের মাধ্যমে টাকা উত্তলণ করতে পারবেন। উক্ত পদ্ধতিতে টাকা উত্তলণ করার জন্য আপনাকে কোন প্রকার কাগজপত্র জমা দিতে হবে না। অনেক সহজ ভাবে পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নিতে পারবেন।

এছাড়া মজার বিষয় হলো আপনি পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা পাঠালে প্রতিবার এর লেনদেনে পেয়ে যাবে 2% বোনাস।

উক্ত ২% বোনাস ও স্মার্ট মোবাইল জেতার সুযোগ পেয়ে যাবেন। উক্ত বিষয়টি বিকাশ কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছে।

বাংলাদেশ থেকে যে সকল ফ্রিল্যান্সার বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে কাজ করে টাকা আয় করে, সেক্ষেত্রে পেপাল একাউন্ট ব্যবহার করার সুযোগ পায় না।

তাই বাংলাদেশি ফ্রিল্যান্সারদের টাকা উত্তলণ করতে অনেক সমস্যায় পড়তে হয়। তাই আমাদের এই পোস্টে আপনাকে জানাব পেওনিয়ার থেতে বিকাশে টাকা ট্রান্সফার করার নিয়ম।

আপনি যদি পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য জানতে চান। তাহলে নিচে দেওয়া তথ্য গুলো শেষ পর্যন্ত মনযোগ দিয়ে পড়ুন।

পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নেওয়ার নিয়ম

আমাদের বাংলাদেশ থেকে যারা অনলাইনে কাজ করে মানে অনলাইন ইনকাম কর তাদের মধ্যে বেশি অংশ লোক কিন্তু পেওনিয়ার একাউন্ট ব্যবহার করে টাকা উত্তলণ করার জন্যে।

পেওনিয়ার ব্যবহার করার কারণ হলো, বাংলাদেশে পেপাল একাউন্ট এর সার্ভিস এখনো চালু হয়নি। তাই এই সময়ে লোকেরা একজন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে পেওনিয়ার থেকে টাকা নিয়ে থাকে।

আপনি যদি পেওনিয়ার একাউন্ট ব্যবহার করেন তাহলে বাংলাদেশ থেকে একজন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে বিভিন্ন মার্কেপ্লেসে যেমন- আমাজন, আপওয়ার্ক, ফাইবার ইত্যাদিতে কাজ করে টাকা ইনকাম করে সহজেই টাকা উত্তলণ করতে পারবেন।

তাই আমাদের এই পোস্টে আপনাদের সুবিধার্থে জানাব পেওনিয়ার থেকে ব্যাংক শাখায় টাকা না নিয়ে নিজের মোবাইল ব্যাংকিং একাউন্ট বিকাশ এর মাধ্যমে সরাসরি টাকা নিয়ে আসতে পারবেন।

এই বিষয়ে আমরা এখানে সঠিক তথ্য দেওয়ার চেষ্টা করব। তবে আপনি যদি পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা আনতে চান। তাহলে আপনার কাছে দুইটি জিনিস থাকতে হবে যেমন-

আরো পড়ুনঃ

  1. পেওনিয়ার একাউন্ট এবং
  2. বিকাশ একাউন্ট।

আপনার যদি বিকাশ একাউন্ট থাকে তাহলে, আপনাকে অবশ্যই বিকাশ এপ ব্যবহার করতে হবে। এবং বিকাশ একাউন্ট এর সাথে আপনার পেওনিয়ার একাউন্ট যুক্ত করতে হবে।

আপনি যদি বিস্তারিত জানতে চান, তাহলে নিচে দেওয়া তথ্য মনযোগ দিয়ে পড়ুন।

বিকাশ অ্যাপে পেওনিয়ার একাউন্ট যুক্ত করার নিয়ম

আপনি যদি একজন ফ্রিল্যান্সার হয়ে থাকেন। তাহলে এই নিয়মটি আপনার জানা অতন্ত্য জরুরী। কারণ আপনি বাংলাদেশ থেকে পেপাল একাউন্ট ব্যবহার করতে পারবেন।

সেক্ষেত্রে আপনাকে ব্যবহার করতে হবে, পেওনিয়ার একাউন্ট। তাই পেওনিয়ার একাউন্ট ব্যবহার করার ফলে, আপনার ইনকাম করা টাকা পেওনিয়ার থেকে সরাসরি কোন ব্যাংক একাউন্টে জমা হবে।

কিন্তু আমাদের মধ্যে এমন অনেক এলাকা আছে সেগুলোতে পেওনিয়ার একাউন্ট থেকে টাকা তোলার জন্য ব্যাংক শাখা নেই। সেক্ষেত্রে আমাদের অনেক দুরে গিয়ে টাকা উত্তলণ করতে হয়।

কিন্তু চিন্তার কোন কারণ নাই। আমরা এখানে আপনাকে সহজ ভাবে জানিয়ে দেব। আপনি পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা ট্রান্সাফার করে উত্তোলণ করতে পারবেন।

তার আগে আপনার স্মার্ট মোবাইলে একটি বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করতে হবে। তার পরে আপনার পেওনিয়ার একাউন্ট বিকাশ একাউন্টে যুক্ত করতে হবে।

আমরা এখানে আপনার সুবিধার্থে জানিয়ে দেব, স্টেব বাই স্টেপ পেওনিয়ার একাউন্ট বিকাশে যুক্ত করার বিষয়ে।

তো চলুন নিচে দেওয়া স্টেপ গুলো দেখে নেওয়া যাক।

স্টেপ- ১

শুরুতে আপনাকে বিকাশ অ্যাপ ডাউনলোড করে মোবাইলে ইনস্টল করতে হবে। এবং আপনার বিকাশ একাউন্টটি লগইন করতে হবে। তারপরে পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নেওয়ার জন্য বিকাশ অ্যাপ চালু করে More অপশনে ক্লিক করবেন।

স্টেপ– ২

More অপশনে ক্লিক করার পরে, আপনি রেমিটেন্স নামে একটি অপশন পেয়ে যাবেন। বিকাশ একাউন্ট এর সাথে পেওনিয়ার একাউন্ট লিংক তৈরি করার জন্য Remittances অপশনে ক্লিক করতে হবে।

স্টেপ- ৩

Remittances এ ক্লিক করার পর, আপনি পেওনিয়ার নামে একটি অপশন পেয়ে যাবেন। পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নেওয়ার জন্য আপনাকে অবশ্যই Payoneer লেখাতে ক্লিক করতে হবে।

আরো পড়ুনঃ

স্টেপ- ৪

পেওনিয়ারে ক্লিক করার পরে আপনাকে পেওনিয়ার একাউন্ট লগইন করে নিতে হবে। আপনার যদি আগে থেকে একটি পেওনিয়ার একাউন্ট থঅকে তাহলে ইমেইল ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করে নিন।

যদি আপনার কোন পেওনিয়ার একাউন্ট না থাকে তাহলে পেওনিয়ার একাউন্ট তৈরি করুন অপশনে ক্লিক করতে হবে। আপনি সরাসরি পেওনিয়ার একাউন্ট তৈরি করে নিতে পারবেন।

স্টেপ- ৫

পেওনিয়ার একাউন্ট লাগইন করার পরে যখন পেওনিয়ার একাউন্ট Success লিংক দেখাবে তখন আপনি বিকাশে পেওনিয়ার দেখতে পারবেন।

পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নেওয়ার শর্ত

পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নেওয়ার শর্ত। আপনি যদি বিকাশ হতে দেওয়া উক্ত অফার গ্রহণ করেন তাহলে, কিভাবে অংশগ্রহণ করবেন। আপনি এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য বিকাশ থেকে পেয়ে যাবেন। যেমন-

পেওনিয়ার থেকে বিকাশে লেনদেনে ২% বোনাস

আপনি যদি একজন ফ্রিল্যান্সার হয়ে থাকেন তাহলে পেওনিয়ার থেকে বিকাশে প্রতিবার টাকা ট্রান্সফার করে ২% বোনাস পেয়ে যাবেন।

উক্ত অফার বিকাশ কোম্পানি প্রায় সময় দিয়ে থাকে। আপনি যত বেশি পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা ট্রান্সফার করবেন ঠিত তত বার আপনি ২% বোনাস পাবেন আনলিমিডেট ভাবে।

পেওনিয়ার থেকে বিকাশে সর্বোচ্চ কবত টাকা নেওয়া যাবে?

আপনি প্রতি ট্রানজেশন থেকে প্রতিদিন সর্বনিম্ন 1000/- টাকা থেকে 125000/- টাকা নিতে পারবেন।

আর সর্বচ্চ এমাউন্টে প্রতিদিন 125000/- টাকা থেকে 450000/- টাকা ট্রান্সফার করতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ

শেষ কথাঃ

তো বন্ধুরা, এই পোস্টে আজ আপনাকে শেখানো হলো- পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নেওয়ার নিয়ম সম্পর্কে।

এছাড়া আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় সম্পর্কে আপনাকে পেওনিয়ার ও বিকাশ সম্পর্কে তথ্য দেওয়া হয়েছে।

আপনি যদি উক্ত আলোচনা অনুসরণ করে থাকেন। তাহলে আপনি এই আর্টিকেল পড়েই দ্রুত যে কোন স্মার্ট মোবাইল ব্যবহার করে, পেওনিয়ার থেকে বিকাশে টাকা নিতে পারবেন।

আমাদের দেওয়া আর্টিকেল আপনার কেমন লাগলো অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। এবং এটি আপনার বন্ধুদের জানতে একটি শেয়ার করে নিবেন।

আমাদের সাইট থেকে নতুন নতুন আর্টিকেল পড়তে চাইলে নিয়মিত ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

To Write Your Thoughts Please Login First

Login

অন্যের কল লিস্ট চেক করবেন কিভাবে? জানুন বিস্তারিত !

আমাদের মাঝে মাঝেই প্রয়োজন হয় আমাদের কাছের কারোর কল লিস্টটা একটু ঘেটে দেখতে। জিনিসটা একটু বাজে বা অন্যরকম শোনালেও এটাই কিন্তু এখন সত্যি। যাই হোক...

ইনভেস্ট ছাড়া অনলাইনে আয়ের জনপ্রিয় উপায়- জানুন বিস্তারিত!!

ইন্টারনেট এর একদম শুরু থেকে আজ পর্যন্ত চিন্তা করলে অনেক পরিবর্তন আপনি দেখতে পারবেন। সেই প্রায় ৮০০ মিলিয়ন ইউজার সংখ্যা বেড়ে যাওয়া কিন্তু চারটি খানি...

আর্টিকেল লেখার নিয়ম। কিভাবে একটি আকর্ষণীয় আর্টিকেল লিখবেন?

আর্টিকেল লেখার নিয়ম: অনলাইনে ক্যারিয়ার গড়ার সবচেয়ে ভালো একটি মাধ্যম হলো ফ্রিল্যান্সিং। সেই ফ্রিল্যান্সিং শুধু একটি কিংবা দুটি কাজের মধ্যে কিন্তু সীমাবদ্ধ নয়। বরং হাজার...

গ্রাফিক্স ডিজাইনের জন্য প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার- জেনে নিন কি কি লাগবে!!

গ্রাফিক্স ডিজাইন হলো সম সাময়িক একটি জনপ্রিয় অনলাইন ভিত্তিক কাজ বা ফ্রিল্যান্সিং ওয়ার্ক। গ্রাফিক্স ডিজাইন এর কথা উঠলেই আপনার সামনে ভেসে উঠবে হাজার ফ্রিল্যান্সার এর...