ইন্সটাগ্রাম থেকে আয় করার উপায় প্রতিমাসে 30 হাজার টাকা

সোশ্যাল মিডিয়া গুলোকে যদি এক সারিতে রাখা হয় তবে ফেসবুকের পরপরই আমাদের মনে আসবে ইন্সটাগ্রাম এর কথা। ছবি কিংবা ভিডিও শেয়ার এর জন্য এক মানসম্মত সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম হলো ইন্সটাগ্রাম। ইন্সটাগ্রাম এর ফলোয়ার মানেই এক আলাদা ব্যাপার সেপার।

যাই হোক যত ফলোয়ার কিংবা যত লাইকই থাকুক দিন শেষে এর  কিছুই কিন্তু আপনাকে একটি টাকাও দিবেন। তাহলে কি লাভ এত সময় এই সোশ্যাল মিডিয়া এর পিছনে ব্যয় করে? লাভ আছে যদি আপনি তা ধরতে পারেন। ইন্সটাগ্রাম থেকে এত লাইক ফলোয়ার এর পাশাপাশি এখান থেকে আয়ও করা যায় একটা মোটা অংকের টাকা।

কিন্তু আজ আমরা এ সম্পর্কে সন্দিহান কেননা আমরা শুধু সেলিব্রেটিজম নিয়েই ব্যস্ত। তাই আজ আপনার এই ঘুমের ঘোর দূর করতেই আজকের আর্টিকেলের প্রতিপাদ্য বিষয় ইন্সটাগ্রাম থেকে আয়ের উপায়। চলুন শুরু করা যাক। 

ইন্সটাগ্রাম থেকে আয়ের উপায় - 

ইন্সটাগ্রাম থেকে আয়ের উপায় খুজার আগে আপনাকে কিছু বিষয় মাথায় ঢুকিয়ে নিতে হবে তা হলো আপনি একটি নর্মাল ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট দিয়ে টাকা কখনোই ইনকাম করতে পারবেন না। এজন্য আপনাকে একটি পেশাদার ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। সেক্ষেত্রে আপনি নিম্নোক্ত বিষয় অনুসরণ করতে পারেন- 

পেশাদার অ্যাকাউন্ট তৈরি

ইন্সটাগ্রাম থেকে আয়ের উপায় জানতে শুরুতেই আপনাকে একটি পেশাদার অ্যাকাউন্ট তৈরি করতে হবে। যার নাম থেকে থেকে শুরু করে বায়ো সবই হবে সেই পেশাদারিত্বকে কেন্দ্র করেই। দরকার পড়লে ভাইরাল কোন নাম দিতে পারেন। এর জন্য ইন্সটাতে সার্চ করুন। ইন্সটাগ্রামেই আপনি অনেক নামের সাজেশন পেয়ে যাবেন খুব সহজেই। এভাবেই ইন্সটাগ্রাম এর একটি পেশাদার অ্যাকাউন্ট বানাতে পারবেন। 

ভিউয়ারসদের বিশ্বাস অর্জন

আপনি যখন একটি পেশাদার ইন্সটাগ্রাম অ্যাকাউন্ট তৈরি করবেন তখন কিছু দিনেই কিছু অডিয়েন্স আপনি পেয়ে যাবেন। এক্ষেত্রে সেই ভিউয়ারয়াস বা অডিয়েন্স ধরে থাকতে অবশ্যই তাদের বিশ্বাস অর্জন করতে হবে একজন ভালো কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হিসাবে। আপনি যত বেশি বিশ্বাস ধরে রাখতে পারবেন আপনার লাভ তত বেশি হবে। তাই চেষ্টা করবেন তারা যাতে আপনার প্রতি সন্তুষ্ট থাকে। 

অর্গানিক ট্রাফিক বাড়ানো

 ইন্সটাগ্রামে খুব সহজেই অর্গানিক ট্রাফিক পাওয়া যায়। আপনি যদি ইন্সটাগ্রামে কিছু ভাইরাল টপিক নিয়ে রিসার্চ করেন তাহলেই দেখতে পারবেন মাবুষ কি নিয়ে সার্চ করছে। আর এভাবেই আপনার আইডিকে একটি ভালো পর্যায়ে নিতে পারবেন। অর্গানিক ট্রাফিক এর উপর জোর নজড় দিতে হবে আপনাকে। আর এই অর্গানিক বিষয়টি বুঝলেই ভালো করতে পারবেন এই ফিল্ডে। 

সামাজিক সম্পৃক্ততা তৈরি 

আপনার অডিয়েন্স এর সাথে একটি ভালো সম্পর্ক তৈরি করুন। এতে করে আপনি একটি স্থায়ী দর্শক গোষ্ঠী পেয়ে যাবেন খুব সহজেই। এবং পরবর্তীতে এটি অনেক কাজে দিবে। তাই অডিয়েন্স এর সাথে প্রশ্ন উত্তর কিংবা অন্য ইন্টার একটিভ সেশন এর মাধ্যম ভালো ভাবে  যুক্ত হোন। এর ফলে লাভটা কিন্তু আপনারই হবে। 

হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করা

ইন্সটাগ্রামে ভাইরাল হওয়ার একটি শর্টকাট হলো হ্যাশট্যাগ ব্যবহার। আপনার কন্টেন্টের ক্যাপশনে ব্যবহার করুন হ্যাশট্যাগ। এই হ্যাশট্যাগ ব্যবহারের মাধ্যমে আপনার কন্টেন্ট খুব তাড়াতাড়ি ভাইরাল হয়ে যাবে ফলে আপনি জনপ্রিয়তা এবং একটি বিপুল পরিমাণের অডিয়েন্স পেয়ে যাবেন। 

ইন্সটাগ্রাম থেকে আয় করার মাধ্যম 

উপরে আমরা জানলাম ইন্সটাগ্রাম থেকে আয় করার জন্য আপনার কি কি থাকতে হবে তা নিয়ে। এ পর্যায়ে আমরা জানপব ইন্সটাগ্রাম থেকে আয় করার মাধ্যম বা কয়টি উপায়ে আপনি ইন্সটাগ্রাম থেকে আয় করতে পারবেন সেটি নিয়ে। নিচে তার পূর্ণ বিবরণ দেয়া হলোঃ 

১. আপনার প্রোডাক্ট বা সার্ভিসের লিংক শেয়ার 

আপনার কন্টেন্ট যখনই ইন্সটাগ্রামে একটু জনপ্রিয়তা পেয়ে যাবে তখনই আপনি ইনকামের বিভিন্ন পন্থা অবলম্বন করতে পারেন। তারই একটি।হল লিংক শেয়ার। আপনি যফি ইন্সটাগ্রামে একজন অ্যাফিলিয়েট মার্কেটার হয়ে থাকেন তাহলে আপনার অ্যাফিলিয়েট প্রোডাক্টের লিংক ইন্সটাগ্রামের কন্টেন্টে দিয়ে দিতে পারেন। এতে করে কি হবে?

এতে করে আপনার অডিয়েন্স এর কেউ আপনার সেই লিংকে ক্লিক করে প্রোডাক্টটি কিনতেও পারে ফলে তার একটি ভাগ আপনি পেয়ে যাবেন। এর মাধ্যমে ইন্সটাগ্রাম থেকে আয় করা যায়। 

এক্ষেত্রে আপনাকে জনপ্রিয় অ্যাফিলিয়েট সাইটের কথা জানিয়্র রাখতে চাই। তা হলোঃ

  • আমাজন(  Amazon) 
  • ওয়ালমার্ট( Walmart) 

বাংলাদেশী সাইটের মধ্যে আপনার জন্য রয়েছে - 

  • বিডিশপ ডট কম ( Bdshop.com) 
  • দারাজ( Darazbd.com) 

বাংলাদেশী সাইটের দ্বারা আপনি মোবাইল দিয়ে আয় করে বিকাশ পেমেন্ট নিতে পারবেন। তাই এটি একটি চমৎকার সুযোগ আমি মনে করি। ইন্সটাগ্রাম থেকে আয়ের এটি প্রথম উপায়। 

স্পন্সর কৃত পোস্ট এর মাধ্যমে আয় - 

স্পন্সর শিপ সমন্ধে আশা করি আপনার একটি ধারণা রয়েছে। স্পন্সর মূলত হলো টাকার বিনিময়ে অন্যের প্রোডাক্ট প্রোমাট করা। এক্ষেত্রে ইন্সটাগ্রাম হলো সবচেয়ে বড় প্রোমোট করার জায়গা। প্রতিদিন হাজারও মানুষের আনাগোনা হয়ে থাকে এই ইন্সটাগ্রামে। তাই আপনার যদি একটি ভালো পরিমাণ অডিয়েন্স থাকে তবে আপনি অন্যের প্রোডাক্ট প্রোমোট করার অনেক অফার পাবেন এবং সেই সাথে টাকার ইনকামও অনেক বেশিই হবে। 

তবে স্পন্সর এর ক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে আপনি কেমন প্রোডাক্ট স্পন্সর করছেন। এখন আপনি যদি একটি খারাপ প্রোডাক্টকে স্পন্সর করে থাকেন তাহলে কিন্তু প্রথম স্পন্সরেই আপনার দুর্নাম রটে যাবে এবং আপনি প্রশ্নবিদ্ধ হবেন। আপনার ভিউয়ারসও কমে যাওয়াত চান্স রয়েছে। তাই সব সময় ভালো প্রোডাক্টকেই স্পন্সর করবেন। আর এটি হলো আরেকটি ইন্সটাগ্রাম থেকে আয়ের উপায়। 

ডিজিটাল পণ্য বিক্রি- 

আপনার কি স্পন্সর নেই। আপনি কি অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং  সমন্ধেও পরিচিত নন। কিন্তু আপনি।চাচ্ছেন টাকা ইনকাম করতে? তাহলে চিন্তা নেই। আপনিও টাকা ইনকাম করতে পারবেন ইন্সটাগ্রাম থেকে। আর এই ইনকাম হবে ডিজিটাল পণ্য বিক্রি করার মাধ্যমে। 

ডিজিটাল এই বিশ্বে পণ্যও এখন হয়ে দাড়িয়েছে ডিজিটাল পণ্যগুলো। হ্যাঁ সবাই এখন ডিজিটাল পণ্যের পিছনে পড়ে রয়েছে। আপনি হয়ত ভাবছেন ডিজিটাল পণ্য কি? 

ডিজিটাল পণ্য বলতে মূলত বিভিন্ন ডিজাইন,ক্যালিওগ্রাফি কিংবা নিজের দক্ষতাকে কাজে লাগিয়ে অন্য কোনো প্রয়োজনীয় জিনিয়া তৈরি করাকে বুঝায়। সহজ কথায় আপনি যদি একটি ডিজাইন বানিয়ে থাকেন বা একটি টি শার্ট ডজাইন করে থাকেন তবে তা ইন্সটাগ্রামে একটি ভালো অ্যামাউন্ট এর বিনিময়ে বিক্রি করে ইনকাম করতে পারবেন। ইন্সটাগ্রাম থেকে আয়ের উপায় এর একটি হলো এটি। 

আপনার স্থানীয় ব্যবসা প্রচারণা- 

আপনার কি স্থানীয় কোন ব্যবসা রয়েছে? বা লোকাল লোকেদের কাছে আপনি কোনো সার্ভিস দিয়ে যাচ্ছেন? 

তাহলে আপনার এই ব্যবসাকে আপনি প্রচার প্রসারণার মাধ্যমে এগিয়ে নিতে পারেন আরও এক ধাপ। আর এই কাজটিও করতে পারবেন ইন্সটাগ্রাম এর মাধ্যমে। স্থানীয় ব্যবসা প্রচার প্রসারণার জন্য ইন্সটাগ্রাম একটি অন্যতম মাধ্যম। অনেকেই এই ইন্সটাগ্রাম ব্যবহার করেই।নিজের ব্যবসাকে অনলাইনেই উপস্থিত করেছেন যার মাধ্যমে আয় বেড়েছে দ্বিগুণ। এবং ক্লায়েন্ট বা গ্রাহকও হয়েছে অনেক। তাই এর মাধ্যমেও আপনার একটি সম সাময়িক ব্যবসার উন্নতি ঘটানো সম্ভব। এর মাধ্যমে আয়ও বৃদ্ধি পাবে। আর এভাবেই আপনি ইন্সটাগ্রাম থেকে আয় করতে পারবেন আপনিও।

Tracking Code: 292171

উপরে আমরা আজ আলোচনা করেছি ইন্সটাগ্রাম থেকে আয়ের উপায় সমন্ধে। আশা করি তা আপনার কাজে দিবে প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ উভয় ভাবেই। আর এর মাধ্যমে।ইন্সটাগ্রাম থেকে একটি ভালোমানের জনপ্রিয়তাও অর্জন করতে পারবেন। পরবর্তী আর্টিকেলের জন্য সাথেই থাকুন। 

To Write Your Thoughts Please Login First

Login

গুগল এডসেন্স পাওয়ার উপায় । গুগল এডসেন্স এর নিয়ম

গুগল এডসেন্স কে সোনার হরিণ ও বলা হয়। কেননা এটা খুবই মূল্যবান একটি এডভার্টিসমেন্ট একাউটন্ট। আজকে আমি আলোচনা করব কিভাবে গুগল এডসেন্স পাওয়া যায় ও...

ফেসবুক থেকে কিভাবে অনলাইনে আয় করা যায়- জানুন বিস্তারিত!!

সবচেয়ে সেরা সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম এর কথা জিজ্ঞেস করলে আপনার কাছে তার উত্তর কি হবে? নিশ্চয় ফেসবুক তাই না? হ্যাঁ, আপনার মতো ৫ বিলিয়ন মানুষের...

অনলাইন ইনকামের গোপন রহস্য- জিনে নিন এবং ধুমসে অনলাইন আয় করুন

অনলাইন ইনকাম বিষয়টি এখন একটি ট্রেন্ড হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেকেই চাকরি এবং পড়ালেখার পাশাপাশি অনলাইন থেকে ভালো পরিমাণে ইনকাম করছেন। আবার অনেকেই এই পেশা নতুন করে...

গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? Graphics Design করে কিভাবে আয় করবেন ?

আমরা মুভি কিংবা অ্যানিমেশন সবাই দেখে থাকি| যে কোনো ক্ষেত্রে এরকম কিছু বিষয় থাকে যেখানে গ্রাফিক্স ডিজাইন উপস্থিত। কিন্তু আমরা সেগুলো ব্যবহার করে থাকলেও ভাবি না মূল...